ব্রেকিং নিউজ

x

পরিত্যক্ত উপাদান দিয়ে পণ্য, রপ্তানি হচ্ছে বিদেশে

বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২১ | ১২:০৪ অপরাহ্ণ

পরিত্যক্ত উপাদান দিয়ে পণ্য, রপ্তানি হচ্ছে বিদেশে

বাণিজ্যিকভাবে মূল্যহীন হলেও হোগলা পাতা, তালপাতা ও কাপড়ের টুকরো দিয়ে তৈরি নীলফামারীর রং-বেরঙের রকমারি ঝুড়ি এখন বিদেশে রফতানি হচ্ছে। পরিত্যক্ত উপাদানকে মূল্যবান রপ্তানিযোগ্য পণ্যে পরিণত করার জাদুকর গোড়গ্রামের প্রায় ৩০০ নারী।

জেলা সদর থেকে প্রায় ১৬ কিলোমিটার দূরে গোড়গ্রাম ইউনিয়নের আশ্রমপাড়া গ্রাম। কিছুদিন আগেও এই গ্রামের অধিকাংশ নারী ছিলেন সংসারে অবহেলার পাত্র, নির্যাতনের শিকার। কিন্তু আজ তারা আর বেকার নন। ব্যস্ত সময় পার করেন পরিত্যক্ত উপাদান দিয়ে রকমারি পণ্য বানিয়ে। ১৯৯৮ সালে এক উদ্যোক্তা এ গ্রামের ১৬ জনকে ঝুড়ি বানানোর প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন। দীর্ঘদিন থেমে থাকার পর ২০০৩ সালে তার ছেলে বাণিজ্যিকভাবে আবার শুরু করেন ঝুড়ি তৈরি প্রকল্প।

কারিগররা প্রতিদিন পান ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা করে। কারিগররা বলেন, সংসারে আগে অনেক দুঃখ কষ্ট ছিল। এখন এই ঝুড়ি বনিয়ে সংসারে আয় উন্নতি হচ্ছে। এ কাজের ফলে আমাদের এবং বাচ্চাদের খরচ আমরা নিজেরাই জোগাতে পারছি। উদ্যোক্তা শেখ মো. আহমেদ উল্লাহ জানান, কর্মীদের স্বাস্থ্যসেবাসহ অবসরকালীন আর্থিক নিশ্চয়তাও রয়েছে তার প্রকল্পে।

তিনি বলেন, এখানকার কর্মীদের মেডিকেল সুবিধা, প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্রাচুইটি, উৎসব ভাতা দেয়া হয়। এ ছাড়া সরকারি চাকরিতে যেসব সুবিধা পাওয়া যায়, সেগুলোও এখানে আস্তে আস্তে দেয়ার চেষ্টা করছি। নীলফামারীর এই গোড়গ্রামের তৈরি রং-বেরঙের রকমারি ঝুড়ি আমেরিকা, কানাডা, জার্মানি ও জাপানে রপ্তানি হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২:০৪ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২১

রয়াল বেঙ্গাল নিউজ.কম |

Development by: webnewsdesign.com

Translate »