ব্রেকিং নিউজ

x

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে থাপ্পড় মারা যুবকের ৪ মাসের কারাদণ্ড

শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১ | ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে থাপ্পড় মারা যুবকের ৪ মাসের কারাদণ্ড

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রোকে থাপ্পড় মারা যুবককে বৃহস্পতিবার (১০ জুন) চার মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। খবর আল-জাজিরার। অভিযুক্ত দামিয়েন তেরেলের বিরুদ্ধে ১৮ মাসের সাজা ঘোষণা করেন আদালত। পরে ১৪ মাসের সাজা স্থগিত করা হয়েছে।

ফলে তাকে চার মাস কারাগারে থাকতে হবে। গত মঙ্গলবার (৮ জুন) ফ্রান্সের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় ভ্যালেন্স শহরের বাইরে তেইন-এল’হারমিটাজে ভ্রমণে যাওয়ার পর ম্যাঁক্রো একটি বেড়ার দিকে হেঁটে যাচ্ছিলেন। তখন ২৮ বছর বয়সী তেরেলের হাত স্পর্শ করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট। ওই ব্যক্তিই তার মুখে থাপ্পড় বসিয়ে দেন। ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ফ্রান্সজুড়ে তীব্র আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়। ঘটনার পর থেকে পুলিশি হেফাজতে রয়েছেন তেরেল।


আদালতে এক প্রসিকিউটার প্রেসিডেন্টকে থাপ্পড় মারার ঘটনাকে ‘সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য’ বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি এটাকে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সহিংসতা’ বলেছেন। এদিকে থাপ্পড় মারার ঘটনায় মুখ খুলেছেন ম্যাঁক্রো। ম্যাঁক্রো বলেন, গণতন্ত্রে ক্ষোভ প্রকাশের সুযোগ আছে, তবে নির্বুদ্ধিতার সাথে সহিংসতা যুক্ত হলে তাকে প্রশ্রয় দেওয়া যায় না। আমি বরাবরই সাধারণ মানুষের কাছাকাছি যাওয়াটাকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করি। অনেক সময়ই তারা ক্ষোভ-হতাশা প্রকাশ করেন। তবে এই ঘটনা তার চলমান জনসংযোগ কর্মসূচিতে কোনো প্রভাব ফেলবে না বলেও জানান ম্যাঁক্রো।

এর আগে এই ঘটনায় প্রতিক্রিয়ায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসেক্স বলেছিলেন, রাষ্ট্রপ্রধানের ওপর হামলার অর্থ হলো গণতন্ত্রের ওপর হামলা। গণতন্ত্রের অর্থ হলো বিক্ষোভ, বিতর্ক, আর আলোচনার মাধ্যমে মতামত আদান-প্রদান। মতভেদ থাকতেই পারে, সেটা জানানোর বৈধ উপায়ও আছে। কোনোভাবেই মৌখিকভাবে হেনস্তা বা শারীরিক আঘাত গ্রহণযোগ্য নয়। উগ্র-ডানপন্থী নেতা লি পেনও এই থাপ্পড়ের নিন্দা জানান। তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক বিতর্ক অনেক তিক্ত হতে পারে, কিন্তু শারীরিক সহিংসতা কখনোই সহ্য করা হবে না।


বাংলাদেশ সময়: ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১১ জুন ২০২১

রয়াল বেঙ্গাল নিউজ.কম |

Development by: webnewsdesign.com

Translate »