ব্রেকিং নিউজ

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেলস্টেশন এলাকায় সাংবাদিকের ওপর হামলা, আসামি রিমান্ডে

মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১ | ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেলস্টেশন এলাকায় সাংবাদিকের ওপর হামলা, আসামি রিমান্ডে

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন এলাকায় পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় দৈনিক প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক শাহাদত হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া রোমান মিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (৭ জুন) বেলা সাড়ে ১২টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকি-আল-ফারাবী দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন। এদিকে সোমবার দুপুরে কাজীপাড়া বাড়ি থেকে মামলার দ্বিতীয় আসামি জুম্মানকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ। শাহাদাতের পক্ষের আইনজীবী মো. নাসির মিয়া ও তারেকুল ইসলাম মৃধা সাংবাদিকদের বলেন, রোমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। আদালত তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন। আইনজীবী এ কেএম ফেরদৌস ও আপেল মাহমুদ রোমানের পক্ষে জামিনের আবেদন করেন।


আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করেছেন। আসামি রোমান মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার কাজীপাড়ার রউফ মিয়ার ছেলে। হামলার ঘটনায় আহত সাংবাদিক শাহাদত হোসেন বাদী হয়ে গত ১ জুন রাতে রোমান মিয়া ও তার বড় ভাই জুম্মান মিয়ার বিরুদ্ধে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় মামলা করেন। ওইদিন বিকেল ৬টায় পৌর শহরের বিরাসার এলাকা থেকে পুলিশ রোমানক আটক করে। পরে ওই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। হামলার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রোমানের বিরুদ্ধে পাঁচদিনের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ।

খোঁজ নিয়ে যানা যায়, হেফাজতের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলস্টেশন চালুর দাবিতে গত ১ জুন বেলা ১১টায় স্টেশন চত্বরে সচেতন ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীর ব্যানারে মানববন্ধনের আয়োজন করেন জেলা ছাত্রলীগ। মানববন্ধনের সংবাদ সংগ্রহ করার জন্য অন্যদের সঙ্গে শাহাদত হোসেনও স্টেশন এলাকায় যান। মানববন্ধন শেষের দিকে শাহাদত জানতে পারেন, ছাত্রলীগের এক কর্মী এক রেলস্টেশনের গেট কিপার মুরাদুল ইসলামকে মারধর করেছেন। শাহাদত বিষয়টি ঘটনাস্থলে উপস্থিত জেলা ছাত্রলীগের সাবেক জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক সহসভাপতি (ভিপি) যুবলীগ নেতা হাসান সারোয়ারকে জানান।


এতে ক্ষিপ্ত হন রোমান মিয়া। একপর্যায়ে হাসান সারোয়ারের সামনেই তিনি শাহাদত হোসেনের ওপর হামলা করেন। সেসময় হাসান সারোয়ার নির্বিকার দাঁড়িয়ে ছিলেন। এতে তার নাক দিয়ে রক্ত বের হয়। উপস্থিত সাংবাদিকেরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন জামি সাংবাদিকদের বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় সাংবাদিক শাহাদত হোসেনের ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোজাম্মেল হোসেন ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম জানান, মামলার আরেক আসামি জুম্মান মিয়াকে দুপুরে কাজীপাড়ার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১:৩৪ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১

রয়াল বেঙ্গাল নিউজ.কম |

Development by: webnewsdesign.com

Translate »